রাঙামাটি । শুক্রবার, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ , ১০ ফাল্গুন ১৪৩০

রাঙামাটি (সদর) প্রতিনিধিঃ-

প্রকাশিত: ১৩:২২, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

আপডেট: ১৩:২৪, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

কাপ্তাই হ্রদ পরিকল্পিতভাবে খনন করার দাবি

কাপ্তাই হ্রদ পরিকল্পিতভাবে খনন করার দাবি
ছবিঃ আলোকিত রাঙ্গামাটি

কাপ্তাই হ্রদের নৌপথগুলি সুষ্ঠু নৌ-চলাচলের স্বার্থে বিভিন্ন প্রশাসনের সমন্বয়ে ৬ উপজেলার যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম নৌপথ পরিকল্পিতভাবে খনন করার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহন) সংস্থা রাঙামাটি জোন।

সোমবার (১২ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাঙামাটির রির্জাভ বাজারে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহন) সংস্থা রাঙামাটি জোনের অস্থায়ী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এই দাবি জানান কর্মকর্তারা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহন সংস্থা) রাঙামাটি জোনের সভাপতি মইনুদ্দিন সেলিম।

এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহন সংস্থা) রাঙামাটি জোনের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, লঞ্চ শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণত সম্পাদক বিশ্বজিত দে, লঞ্চ মালিক আব্দুল গনি, মোঃ আসিফ, মোঃ নুরুল ইসলাম, মোঃ শহিদুল ইসলাম প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে কর্মকর্তারা আরো বলেন, বর্তমানে প্রশাসনকে না জানিয়ে ঢাকা হতে টেন্ডারের মাধ্যমে মাইনীমুখ হতে মেরুং খাল খনন করা হচ্ছে। এর ফলে খননের পলিমাটিগুলি মূল নদীতে এসে পড়ছে। যদি এই খনন কাজগুলি বিআইডব্লিউটিএ, জেলা প্রশাসন, পানি উন্নয়ন বোর্ড ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীন নৌ-চলাচল যাত্রী পরিবহন সংস্থার সমন্বয়ে সঠিক পরিকল্পনা করা হত তাহলে পলিমাটিগুলি নিদিষ্ট স্থানে ফেলার ব্যবস্থা করা যেত। কিন্তু অপরিকল্পিত খনন করার ফলে ৬ উপজেলার নৌ-পথগুলি ভরাট হয়ে যাচ্ছে। এতে কাপ্তাই হ্রদ ভরাট হওয়ার কারণে যে পরিমাণ পানি থাকা প্রয়োজন সেই পরিমান হ্রদে পানি না থাকায় কাপ্তাই বিদ্যুৎ কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদন, মৎস্য ভান্ডার বিলুপ্তসহ লঞ্চ চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। তাই রাঙামাটির ৬টি উপজেলায় যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম নৌ-পথকে সচল রাখতে পরিকল্পিতভাবে সবার সমন্বয়ে কাপ্তাই হ্রদে খান খননের কাজ করার ব্যাপারে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-চলাচল (যাত্রী পরিবহন সংস্থা) রাঙামাটি জোনের কর্মকর্তারা।

সম্পর্কিত বিষয়: