রাঙামাটি । রোববার, ২৩ জুন ২০২৪ , ৮ আষাঢ় ১৪৩১

স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা ডেস্কঃ-

প্রকাশিত: ১২:০৩, ৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

চোখে ড্রপ দেওয়ার সঠিক নিয়ম

চোখে ড্রপ দেওয়ার সঠিক নিয়ম
ফাইল ছবি

চোখ আমাদের অমূল্য সম্পদ। যে অন্ধ তার পুরো পৃথিবীই অন্ধকার। আর মূল্যবান এই চোখ নিয়ে অনেকে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকেন।

চোখে অনেক ধরনের সমস্যা হয়ে থাকে। বিশেষ করে কনজাংটিভাইটিস (বিভিন্ন ধরনের হয়), ক্যালাজিওন, স্টাই, ক্যাটারেক্ট, গ্লকোমা ইত্যাদি।

তখন আমাদের চোখে ড্রপ ব্যবহার করতে হয়। আর এ ক্ষেত্রে বিভিন্ন বিষয় লক্ষ রাখা গুরুত্বপূর্ণ। বিষয়টি নিয়ে বেসরকারি অনলাইন পত্রিকায় আলোচনা করেছেন,  ডা. তাসরুবা- কনসালট্যান্ট, বসুন্ধরা আই হাসপাতাল অ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট, ঢাকা।

অনেকেরই মনে প্রশ্ন আসে যে-

> ড্রপ দেওয়ার সঠিক নিয়ম কী?

> এক ফোঁটার বেশি দিলে কী সমস্যা?

> ড্রপ আর মলমের মধ্যে কোনটি আগে দেব?

> এক কৌটা ড্রপ সর্বোচ্চ কত দিন ব্যবহার করা যায়?

> ড্রপ বা মলম দেওয়ার পর কতক্ষণ চোখ বন্ধ রাখব?

> ড্রপ বা মলম দেওয়ার কতক্ষণ পর চোখ ধুয়ে ফেলব? আদৌ প্রয়োজন আছে কি?

চোখে ড্রপ ব্যবহারের নিয়মাবলি

> ড্রপ ব্যবহারের আগে হাত ভালো করে ধোয়া।

> যেদিন প্রথম ড্রপের বোতলের ক্যাপ খোলা হবে সেদিন ড্রপের বোতলের গায়ে তারিখটা লিখে রাখবেন।

> কারণ ড্রপের মুখ খোলার পর এক মাসের বেশি ওই ড্রপের বোতল ব্যবহার করা যায় না বা উচিত নয়।

> যদি ড্রপটি সাসপেনশন টাইপ হয়, তাহলে ব্যবহারের আগে ঝাঁকিয়ে নিতে হবে।

> এরপর রোগীকে বসিয়ে মাথাটা পেছনের দিকে নিয়ে চোখের নিচের অংশ আলতোভাবে টেনে ধরে চোখের কোনায় ড্রপ দিতে হবে।

> ড্রপ দেওয়ার পরে কমপক্ষে ১০ সেকেন্ড চোখ বন্ধ করে রাখতে হবে। তবে ৩০ সেকেন্ড থেকে এক মিনিট বন্ধ রাখা উত্তম।

> ড্রপ চোখে দেওয়ার পরে চোখের কোনায় নাকের পাশটা চেপে ধরতে হবে, যাতে নাকে না চলে যায় বা চোখ বেয়ে গড়িয়ে না পড়ে।

> খেয়াল রাখতে হবে ড্রপ যেন কর্নিয়ায় না পড়ে এবং ড্রপের নজেলের স্পর্শ যেন চোখে, আঙুলে বা অন্য কোথাও না লাগে।

> প্রতিটি চোখে এক ফোঁটা করে ড্রপ দিতে হবে (মানে দুই চোখে এক ফোঁটা এক ফোঁটা করে দিতে হবে)। একের অধিক ড্রপ একই সময়ে দেওয়া যাবে না।

> আপনার ডাক্তার যদি একের অধিক ধরনের ড্রপ দিতে বলেন, তাহলে একই সময়ে দুই ধরনের ড্রপ দেওয়া যাবে না। এক ধরনের ড্রপ ব্যবহার করার ১০ মিনিট পরে আরেক ধরনের ড্রপ ব্যবহার করতে হবে।

> যদি চোখের ড্রপ ও অয়েন্টমেন্ট দুটিই প্রেসক্রিপশনে থাকে, তাহলে আগে ড্রপ ব্যবহার করতে হবে, এরপর অয়েন্টমেন্ট। অয়েন্টমেন্ট ব্যবহারের অন্তত দুই ঘণ্টা পরে আবার ড্রপ ব্যবহার করতে হয়।

> ড্রপ ব্যবহারের ফলে যদি চোখ জ্বালাপোড়া বা অন্য কোনো সমস্যা অনুভূত হয়, তাহলে ডাক্তারকে বিষয়টি জানাতে হবে।

> যদি কোনো ড্রপ ব্যবহারে আপনার অ্যালার্জির সমস্যা হয়ে থাকে, তাহলে আপনার ডাক্তারকে সেই ড্রপটির নাম জানান।

> চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া নিজে থেকে চোখের ড্রপ ব্যবহার বন্ধ করবেন না।

> ড্রপের মেয়াদ শেষের তারিখ দেখে নিন। চিকিৎসকের নির্দেশিত তারিখের পরও যদি আই ড্রপ থেকে যায়, তাহলে তা ব্যবহার করবেন না।

চোখে ড্রপ ব্যবহারের সময় এড়িয়ে চলুন বিষয়গুলো

> চোখ লাল হলে নিজে নিজে আই ড্রপ ব্যবহার করবেন না।

> আই ড্রপের বোতলটি যেন চোখে লেগে না যায়, সেদিকে খেয়াল রাখুন। কোনো কোনো বোতলের মুখের কাছে একটি বাড়তি রিং আকৃতির অংশ থাকে, ড্রপ দেওয়ার সময় এটি খুলে না ফেললে চোখে আঘাত লাগার ঝুঁকি থাকে। এ রকম রিং থাকলে চোখে ড্রপ দেওয়ার আগেই সেটি খুলে একেবারে ফেলে দিন।

> কখনোই চোখের কালো অংশে অর্থাৎ কর্নিয়ায় সরাসরি ড্রপ ফেলবেন না।

> কন্টাক্ট লেন্স পরা অবস্থায় আই ড্রপ বা অয়েন্টমেন্ট ব্যবহার করবেন না।