রাঙামাটি । রোববার, ২৩ জুন ২০২৪ , ৮ আষাঢ় ১৪৩১

রাঙামাটি (সদর) প্রতিনিধিঃ

প্রকাশিত: ২০:৫৩, ১ জুন ২০২৪

ইউপি চেয়ারম্যান আতুমং মারমাকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় মামলা

ইউপি চেয়ারম্যান আতুমং মারমাকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় মামলা
বড়থলি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতোমং মারমা। ছবি: আলোকিত রাঙ্গামাটি

রাঙামাটির বিলাইছড়ি উপজেলার বড়থলি ইউপি চেয়ারম্যান আতুমং মারমাকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় বিলাইছড়ি থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। শুক্রবার (৩১ মে) সন্ধ্যায় নিহত আতুমং মারমার বড় ভাই ক্যাচিমং মারমা ৮ জনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় অজ্ঞাত আরো ১২ জনকে আসামী করা হয়।

বিলাইছড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আখতার হোসেন মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, শুক্রবার (৩১ মে) সন্ধ্যায় নিহত চেয়ারম্যানের বড় ভাই ক্যাচিমং মারমা বিলাইছড়ি থানায় বাদী হয়ে  ৩০২/৩৪ ধারায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। এটি যেহেতু চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলা তাই জড়িতদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ ও তদন্তের স্বার্থে আসামীদের নাম জানাতে পারছি না। গত বৃহস্পতিবার (৩০ মে) রাতে আতুমং মারমা চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মারা যান।  

উল্লেখ্য, গত ২১ মে উপজেলা পরিষদ নির্বাচন শেষে বিলাইছড়ি উপজেলার বড়থলি ইউনিয়নের বড়থলি মারমা পাড়ায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন চেয়ারম্যান আতুমং মারমা। ওই সময় অজ্ঞাত সন্ত্রাসীরা তাকে গুলি করে পালিয়ে যায়। গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন আতুমং মারমা। স্থানীয় সেনাবাহিনী, নির্বাচনের দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্য ও গ্রামবাসীরা তাঁকে বান্দরবানের রুমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে বান্দরবান জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। ৯দিন পর গত বৃহস্পতিবার রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন তিনি।