রাঙামাটি । রোববার, ২৩ জুন ২০২৪ , ৮ আষাঢ় ১৪৩১

কাপ্তাই (রাঙামাটি) প্রতিনিধিঃ-

প্রকাশিত: ০৯:৫১, ১৬ মে ২০২৪

মেধাবী মুখ

কাপ্তাইয়ের যমজ দুই বোনকে ডাক্তার ও ইঞ্জিনিয়ার বানানোর স্বপ্ন মা-বাবার

কাপ্তাইয়ের যমজ দুই বোনকে ডাক্তার ও ইঞ্জিনিয়ার বানানোর স্বপ্ন মা-বাবার
​​​​​​​জিপিএ-৫ পাওয়া যমজ দুই বোন।

কাপ্তাই উপজেলাধীন নৌবাহিনী স্কুল এন্ড কলেজ থেকে ২০২৪ অনুষ্ঠিত এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়ে যমজ দুইবোন জিপিএ-৫ অর্জন করেছে। এরা হলেন- হ্লাহ্লাসিং চৌধুরী ও হ্লাহ্লাচিং চৌধুরী। তারা দু'জনই বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিল। তারা রাঙামাটি জেলাধীন রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গালহালিয়া হেডম্যান পাড়ার বাসিন্দা। তাদের পিতা মংচিং চৌধুরী একজন অবসর প্রাপ্ত সেনা সদস্য এবং মা মাথুইচিং মারমা বাঙ্গালহালিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক। যমজ দুই কন্যার জিপিএ-৫ অর্জনে খুশী তাদের পরিবার।

তাদের মা মাথুইচিং মারমা জানান, আমার যমজ দুই মেয়ের এই অর্জনে আমরা ভীষণ খুশী। এই অর্জনে তিনি এবং মেয়েদের পিতার সংগ্রামের কথা তুলে ধরেন। বিশেষ করে মেয়েদের লেখাপড়ার সুবিধার জন্য তাদের পিতা হেডম্যানের দায়িত্ব পর্যন্ত ছেড়ে দিয়েছেন। মেয়েদের লেখাপড়ার সুবিধার্থে তাদের বাবা মংচিং চৌধুরী মেয়েদের নিয়ে কাপ্তাইয়ে আলাদা বাসায় থাকতেন। আজ দুই মেয়ের জিপিএ-৫ অর্জনে তাদের সেই কষ্ট সার্থক হয়েছে বলে তিনি অনুভূতি প্রকাশ করেন। এছাড়া মেয়েদের এই অর্জনে কাপ্তাই নৌবাহিনী স্কুলের শিক্ষকরাও অনেক অবদান রেখেছেন বলে তিনি জানান। এজন্য তাদের শিক্ষকদেরও তিনি পরিবারের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

এদিকে, যমজ দুই কন্যার ভবিষ্যতের ইচ্ছার বিষয়ে জানতে চাইলে মা মাথুইচিং জানান, এক মেয়েকে ডাক্তার এবং এক মেয়েকে ইঞ্জিনিয়ার করার স্বপ্ন রয়েছে তাদের। এছাড়া যমজ দুই কন্যার আরেক জন ভাই রয়েছে। তার নাম সুইমচিং চৌধুরী। সে বর্তমানে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয়ে এমএসসি করছে।

কাপ্তাই উপজেলা ভারপ্রাপ্ত মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার সৈয়দ মাহামুদ হাসান জানান, কাপ্তাই নৌবাহিনী স্কুলের দুই যমজ শিক্ষার্থীর জিপিএ-৫ অর্জনে আমরা অনেক আনন্দিত। আমরা তাদের জন্য দোয়া করি ভবিষ্যতে যেন এই সফলতা অব্যাহত থাকে।

সম্পর্কিত বিষয়: