রাঙামাটি । শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪ , ২৯ চৈত্র ১৪৩০

নিউজ ডেস্কঃ-

প্রকাশিত: ১৩:৩৩, ১৪ মার্চ ২০২৩

গোপন তথ্য ফাঁস, তারেকের নজরদারিতে বিএনপির সিনিয়ররা

গোপন তথ্য ফাঁস, তারেকের নজরদারিতে বিএনপির সিনিয়ররা
বিএনপির লোগো- ফাইল ফটো

বিএনপির ভেতরের সব তথ্য ফাঁস হয়ে যাচ্ছে। আন্দোলন-কর্মসূচির নামে তাদের নাশকতা ও সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের তথ্য আগেভাগেই জেনে যাচ্ছে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও জনগণ। ফলে মাঠে নামার আগেই পণ্ড হয়ে যাচ্ছে বিএনপির সব পরিকল্পনা। এ অবস্থায় দলের সিনিয়র নেতাদের ওপর ক্ষেপেছেন লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান। এমনকি তথ্য ফাঁস করা ব্যক্তিকে খুঁজতে সিনিয়র নেতাদের ওপর গোপনে নজরদারিও চালাচ্ছেন তিনি।

সূত্র বলছে, তারেক রহমানের নজরদারিতে আছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির আহ্বায়ক আমানউল্লাহ আমানের মতো সিনিয়র নেতারা।

জানা গেছে, তারেক রহমানের সঙ্গে নিয়মিত ভার্চুয়ালি মিটিং করেন বিএনপি নেতারা। সেসব  মিটিংয়ে উঠে আসে খালেদা জিয়াকে মাইনাস করার পরিকল্পনা, দলীয় নেতৃত্ব নির্বাচন নিয়ে আলোচনা, দেশব্যাপী নাশকতা-অগ্নিসন্ত্রাসের পরিকল্পনা, তারেকের চাঁদাবাজির মতো বিষয়বস্তু। কিন্তু এসব তথ্য কোনোভাবেই গোপন থাকছে না। ফাঁস হয়ে যাওয়ায় মাঠে নামার আগেই ভেস্তে যাচ্ছে তারেক রহমানের সব অপকৌশল। এমন পরিস্থিতিতে চরম বেকায়দায় পড়েছেন তিনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিএনপির স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, তারেক রহমানের সঙ্গে গুটিকয়েক নেতার মিটিং হয়। তবে গোপন মিটিংয়ের তথ্য ফাঁস হওয়ায় ভুক্তভোগী হয় দলের সবাই। এ কারণে আসল অভিযুক্ত ব্যক্তিকে খুঁজতে নজরদারি চালাচ্ছেন তারেক রহমান। 

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলেন, বিএনপির সিনিয়র নেতাদের সঙ্গে খালেদা জিয়াকে মাইনাস করার ফর্মুলা নিয়ে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছেন তারেক রহমান। আর এ তথ্য ফাঁস হওয়ায় নড়েচড়েই বসেছেন খালেদা জিয়া ও তার পক্ষের নেতাকর্মীরা। ফলে মাইনাস ফর্মুলা বাস্তবায়নের আগেই ভেস্তে যাচ্ছে তারেকের অপকৌশল। এ অবস্থায় বিএনপির ভেতরের কোন্দল আবারো বড় আকার ধারণ করছে। নির্বাচনের আগে এসব কোন্দল দূর করতে না পারলে দলটির অস্তিত্ব আরো হুমকির মুখে পড়বে।

জনপ্রিয়