রাঙামাটি । শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪ , ২৮ আষাঢ় ১৪৩১

ব্রেকিং

গভীর রাতে কাপ্তাইয়ের কেপিএমে আগুন, উৎপাদন বন্ধবন্যপ্রাণী বাঁচাতে হলে পরিবেশ ও আবাসস্থল ঠিক রাখতে হবেরাঙামাটিতে ছেলে ধরা সন্দেহে আটক ১বগুড়ায় একই পরিবারের নিখোঁজ ৭ জনকে রাঙামাটিতে উদ্ধারক্ষুদ্র নারী উদ্যোক্তাদের আর্থিক অনুদান দিলো রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদপরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বৃক্ষরোপণের বিকল্প নেই: দীপংকর তালুকদারনারী পাচার চক্রের তিন চাকমা সদস্যকে জেল হাজতে প্রেরণবাঘাইছড়িতে বন্যার পানিতে তলিয়ে নিখোঁজ শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধারটানা বর্ষণে কাপ্তাই হ্রদে পানি বৃদ্ধি, চার ইউনিটে বিদ্যুৎ উৎপাদন ১৬৪ মেগাওয়াটখাগড়াছড়িতে পাহাড়ধস: ৩ ঘণ্টা পর যান চলাচল স্বাভাবিকতিন দিনের সফরে রাঙামাটি আসছেন রাষ্ট্রপতিরাঙামাটিতে পাহাড় ধসের সর্তকতায় মাইকিং, প্রস্তুত ২৬৭ আশ্রয়কেন্দ্ররাঙামাটিতে জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা অনুষ্ঠিতবাঘাইছড়ি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন ২৭ জুলাই, ভোট ইভিএমে

বিজ্ঞান ডেস্ক-

প্রকাশিত: ১৭:৫২, ২১ জুন ২০২৪

বছরের সবচেয়ে ছোট রাত আজ

বছরের সবচেয়ে ছোট রাত আজ
সংগৃহীত ছবি

আপনি আজ বছরের দীর্ঘতম দিন অতিবাহিত করছেন। সন্ধ্যা নামলেই শুরু হবে বছরের সবচেয়ে ক্ষুদ্রতম রাত। এরপরই প্রতিনিয়ত রাতের দৈর্ঘ্য বাড়বে। ছোট হতে থাকবে দিন।

রাজধানী ঢাকায় আজ সূর্য ডুববে ৬টা ৪৯মিনিটে এবং কাল হবে সূর্যোদয় ভোর ৫টা ১২ মিনিটে। হিসেব মতে, ঢাকায় আজ রাতের দৈর্ঘ্য হবে ১০ ঘণ্টা ২৩ মিনিট। দেশের অন্যান্য শহরগুলোতেও রাতের দৈর্ঘ্য এর কাছাকাছিই থাকবে।

ভৌগোলিক নিয়ম অনুসারে পৃথিবী সাধারণত দুটি ভাগে বিভক্ত। উত্তর গোলার্ধ ও দক্ষিণ গোলার্ধ। এক গোলার্ধে যে অবস্থা বিরাজ করে প্রকৃতির নিয়ম অনুসারেই তখন অন্য গোলার্ধে বিপরীত অবস্থা বিরাজ করে। আর এই কারণেই পৃথিবীর বার্ষিক গতি চলতে থাকে। যার কারণে পৃথিবীর ঋতু পরিবর্তিত হয়।

আজকের দিনটি কর্কট ক্রান্তি দিবস হিসেবে পরিচিত। এটি উত্তর গোলার্ধের সবচেয়ে বড় দিন। এদিনে সূর্য সবচেয়ে বেশি সময় ধরে কিরণ দেবে পৃথিবীর এ অংশে। কর্কট ক্রান্তি রেখা আর মকর ক্রান্তি রেখা দুটির মধ্যে কর্কট ক্রান্তি রেখা দিন কতটা বড় হবে তা নির্ধারণ করে থাকে। আজকে দিনে সূর্য কিরণ থাকবে ১৩ ঘণ্টা ৩৬ মিনিট ৮ সেকেন্ড।

২৩ সেপ্টেম্বর সূর্য আবার অবস্থান নেয় বিষুব বৃত্তের বিন্দুতে, যেখানে ক্রান্তি বৃত্ত ও বিষুব বৃত্ত পরস্পরকে ছেদ করেছে। একে বলা হয় জলবিষুব বিন্দুতে। এই দিন পুনরায় পৃথিবীর সর্বত্র দিন-রাত সমান হয়ে থাকে।

এর পর থেকেই আবার উত্তর গোলার্ধে ক্রমশ রাত বড় হতে হতে সূর্য পৌঁছে যায় ক্রান্তি বৃত্তের দক্ষিণ অয়নায়ন বিন্দুতে। এভাবে ২১ ডিসেম্বর তারিখে উত্তর গোলার্ধে হয় দীর্ঘতম রজনী আর ক্ষুদ্রতম দিবস। এ সময় সূর্য মকর বৃত্তে অবস্থান করে থাকে।

উত্তর গোলার্ধে সূর্য সোমবার বেশি সময় ধরে কিরণ দেওয়ার কারণে দক্ষিণ গোলার্ধে কিন্তু স্বভাবতই দিন হবে সবচেয়ে ছোট। উত্তর গোলার্ধে সোমবার দুপুর ১২টায় সূর্য থাকবে ঠিক কর্কট ক্রান্তি রেখার উপরে।

জনপ্রিয়